সবার জন্য আর্থিক ও স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে মিলভিক ও রবির যৌথ স্বাস্থ্যসেবা ক্যাম্প

স্বাস্থ্যসেবা


প্রতিটি পরিবারকে স্বাস্থ্য ও আর্থিক সুরক্ষা দেয়ার লক্ষ্যে মিলভিক বাংলাদেশ ও তার মোবাইল নেটওয়ার্ক পার্টনার রবি এক সাথে কাজ করছে ২০১২ সাল থেকে। এরই ধারাবাহিকতায় ১২ মে রাজধানী ঢাকার মিরপুরে আয়োজিত হল একটি কমিউনিটি স্বাস্থ্যসেবা অনুষ্ঠান। দিনব্যাপী মোট ১০ জন চিকিৎসক এই অনুষ্ঠানে স্থানীয় বাসিন্দা ও দর্শনার্থীদের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করেন। স্বাস্থ্য সচেতনতা ক্যাম্পের পাশাপাশি এই আয়োজনে রবি ও মিলভিকের যৌথ ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা প্যাকেজ “মাই হেলথ ফ্যামিলি প্যাক” –এর সুবিধাসমূহ সম্পর্কে স্বাস্থ্যসেবা ক্যাম্পে আগতদের অবগত করানো হয়। কীভাবে এই প্যাকেজটির আওতায় মোবাইলে ডাক্তারের পরামর্শ এবং হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রে ক্যাশব্যাক সুবিধা পাওয়া যায় এ সম্পর্কে জানেন তারা। অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রে আর্থিক সুরক্ষা নিশ্চিত করা ও মোবাইলের মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা সবার দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়াই এ প্যাকেজের উদ্দেশ্য। মিলভিকের মোবাইল-ভিত্তিক ডিজিটাল সলিউশনের কল্যাণে রবি ও এয়ারটেলের গ্রাহকরা খুব সহজে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সেবাটি গ্রহণ করতে পারবেন। প্রতিমাসে মাত্র ৬০ টাকা ব্যয়ে হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রে বছরে সর্বোচ্চ ৩০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক অফার উপভোগ করতে পারবেন গ্রাহক ও তার মনোনীত পরিবারের ২ জন সদস্য। এছাড়াও ২১২১৬ এ ফোন করে নিজে ও তার পরিবারের সদস্যদের জন্য মানসম্পন্ন চিকিৎসকদের কাছ থেকে পরামর্শ গ্রহণ করতে পারবেন গ্রাহকরা। প্রোটেকটীভ ইসলামি লাইফ ইনস্যুরেন্সের মাধ্যমে হাসপাতাল ক্যাশব্যাক সুবিধা দেয়া হয়। মিলভিক বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজার আকিরা মরিটা বলেন, এ আয়োজনটি সফল হওয়ায় এবং বাংলাদেশের জনগণের জন্য আর্থিক ও স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের সুযোগ পেয়ে আমরা আনন্দিত। মানসম্পন্ন স্বাস্থ্যসেবা অনেকের কাছেই সহজলভ্য না, অনেক ক্ষেত্রে হাসপাতালে কয়েক রাত ভর্তি থাকতে হলে তাদের স্বাস্থ্যগত সমস্যার পাশাপাশি আর্থিক সংকটেরও মুখোমুখি হতে হয়। আজকের অনুষ্ঠানে আর্থিক সহায়ক হিসেবে বীমার গুরুত্ব তুলে ধরার পাশাপাশি সাশ্রয়ী স্বাস্থ্য ও বীমা সেবা সম্পর্কে সচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে আমরা কাজ করেছি। এ পদক্ষেপের মাধ্যমে জনসাধারণের সাস্থ্যের পাশাপাশি ভবিষ্যতের আর্থিক নিরাপত্তাও দৃঢ় হবে। রবির বিজনেস অপারেশনস-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মোঃ মাহবুবুল আলম ভূঁইয়া বলেন, “দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশে বীমা সুবিধা গ্রহণের প্রবণতা সবচেয়ে কম। এর ফলে অসুস্থতা ও দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে ঝুঁকিতে পড়েন জনসাধারণ। জনসাধারণকে সাথে নিয়ে এ আয়োজনের মাধ্যমে রবি ও এর সহযোগী মিলভিক বাংলাদেশ তাদের আর্থিক নিরাপত্তার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে ধারণা দিয়েছে। পাশাপাশি সাশ্রয়ী ও ব্যবহার-বান্ধব ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা রবি মাই হেলথ প্যাকেজের সুবিধা সম্পর্কে তুলে ধরা হয়। ভবিষ্যতেও আমরা জনগণের জন্য এমন আয়োজন পরিচালনা করব।”